আরও ১৭ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১২৭৮

0
70
আরও ১৭ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১২৭৮

আপডেট »১০≈ অক্টোবর ≈ ২০২০

গৃহকোণ প্রতিবেদক: রাজধানীসহ সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে আরও ১৭ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে পুরুষ নয়জন ও নারী আটজন। তাদের সকলেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল পাঁচ হাজার ৪৭৭ জন। করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় ১০৯টি পরীক্ষাগারে ১১ হাজার ৫০৬টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তার মধ্যে পরীক্ষা করা হয় ১১ হাজার ২৫৬টি নমুনা। এ সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ২৭৮ জন। ফলে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল তিন লাখ ৭৫ হাজার ৮৭০ জন। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ৫০ হাজার ৬৬৯টি। গতকাল শুক্রবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনাবিষয়ক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৫৫৬ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থের সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ৮৯ হাজার ৯১২ জন। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় রোগী শনাক্তের হার ১১ দশমিক ৩৫ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার তুলনায় রোগী শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ। রোগী শনাক্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৭৭ দশমিক ১৩ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৬ শতাংশ। এ পর্যন্ত করোনায় মোট মৃতের মধ্যে পুরুষ চার হাজার ২২২ জন (৭৭ দশমিক ০৯ শতাংশ) ও নারী এক হাজার ২৫৫ জন (২২ দশমিক ৯১ শতাংশ)। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ১৭ জনের মধ্যে ত্রিশোর্ধ্ব একজন, চল্লিশোর্ধ্ব তিনজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব আটজন এবং ষাটোর্ধ্ব আটজন। বিভাগ অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ১৭ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১২ জন, চট্টগ্রামে একজন, খুলনায় দুইজন, রংপুরে একজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন মারা যান। আশুলিয়ায় গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে আটক ৫রাজধানীর আশুলিয়ায় এক গৃহবধূ সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আশুলিয়ার রোস্তমপুর এলাকার সাইফুল ও তার বন্ধুদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ সাইফুলসহ পাঁচ জনকে আটক করেছে। তাদের বয়স ২০ থেকে ২৭ বছরের মধ্যে। আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) আবদুর রাশিদ এসব তথ্য জানান। সাইফুলের নাম জানালেও আটক বাকি চার জনের নাম জানাননি পুলিশ পরিদর্শক। ভুক্তভোগী গৃহবধূর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, রাজধানীর মিরপুর এলাকার ওই গৃহবধূর সঙ্গে আশুলিয়ার রোস্তমপুর এলাকার সাইফুলের মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরই সুযোগে গত ২৪ সেপ্টেম্বর ওই নারীকে ডেকে আশুলিয়া নিয়ে আসা হয়। পরে কৌশলে রোস্তমপুর এলাকার একটি নির্জন জঙ্গলে নিয়ে যায় তার কথিত প্রেমিক। পরে সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করা আরও ছয় বখাটে পালাক্রমে তার ওপর যৌন নির্যাতন চালায়। পরে খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ গত বৃহস্পতিবার রাতভর অভিযান চালিয়ে পাঁচ জনকে আটক করে। পুলিশ কর্মকর্তা আবদুর রাশিদ বলেন, সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন