আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানাচ্ছেন চিয়েলিনি

0
42
আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানাচ্ছেন চিয়েলিনি

গৃহকোণ স্পোর্টস ডেস্কঃ আগামী জুনে ওয়েম্বলিতে দক্ষিণ আমেরিকান প্রতিপক্ষ আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ফিফা প্রীতি ম্যাচ খেলেই আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে বিদায়ের ঘোষনা দিয়েছেন ইটালিয়ান অধিনায়ক ও ডিফেন্ডার গিওর্গিও চিয়েলিনি। এবারের কাতার বিশ্বকাপে ইতালি বাছাইপর্বের বাঁধা পার করতে পারেনি। এ কারনেই ৩৭ বছর বয়সী অভিজ্ঞ এই ডিফেন্ডার জাতীয় দল থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। লন্ডনের ওয়েম্বলিতে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচটিই হতে যাচ্ছে তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ। এই মাঠে গত বছর জুলাইয়ে আজ্জুরিরা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপা জিতেছিল। সোমবার সিরি-এ লিগে সাসুলোর বিপক্ষে জুভেন্টাসের ম্যাচের পর চিয়েলিনি স্থাণীয় গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘ওয়েম্বলিতে আমি জাতীয় দলকে বিদায় জানাতে চাই। এই মাঠেই ইউরোর শিরোপা জয় করার মাধ্যমে ক্যারিয়ারের অন্যতম একটি বড় সাফল্য আমি অর্জন করেছিলাম। আর সেই সুখস্মৃতিকে সাথে নিয়েই আমি আজ্জুরিদের বিদায় জানাতে চাই। এটাই ইতালির জার্সি গায়ে আমার শেষ ম্যাচ হতে যাচ্ছে। জাতীয় দলের হয়ে এ পর্যন্ত ১১৬টি ম্যাচ খেলেছেন চিয়েলিনি। ইতালির হয়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার তালিকায় তিনি আন্দ্রে পিরলোর সাথে যৌথভাবে পঞ্চম স্থানে রয়েছেন। এই তালিকায় চিয়েলিনির থেকে এগিয়ে রয়েছেন ড্যানিয়েল ডি রোসি, পাওলো মালদিনি, ফ্যাবিও ক্যানাভারো ও গিয়ানলুইগি বুফন। সোমবারের লিগ ম্যাচটিতে জুভেন্টাসের হয়ে বদলী হিসেবে খেলতে নেমেছিলেন অভিজ্ঞ এই সেন্টার ব্যাক। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারকে বিদায় জানানোর পর ক্লাব ক্যারিয়ার এগিয়ে নিয়ে যাবেন কিনা এ ব্যপারে এখনো কোন সিদ্ধান্ত তিনি নেননি। এ সম্পর্কে চিয়েলিনি বলেছেন, ‘জুভেন্টাসের সাথে আমার ভালবাসা এখনো শেষ হয়ে যায়নি। কার্যত এটা কোনদিনই শেষ হবে না। অবশ্যই এবারের মৌসুমের পর আমি সবকিছু পর্যালোচনা করে দেখবো। পরিবারের সাথে আলোচনা করে যেটা ভাল হয় সেটাই করবো। এখন আমাদের মূল লক্ষ্য শীর্ষ চারে থেকে মৌসুম শেষ করা ও কোপা ইতালিয়া জয় করা। এরপর আমার দুই পরিবার- আমার বাড়ি ও জুভেন্টাসের সাথে বসে যা ভাল হয় সেটাই করবো। গত গ্রীষ্মেও এই একই পরিস্থিতিতে পড়েছিলাম। তখন আমি সময় নিয়েছিলাম ও ইউরোর আগ পর্যন্ত নতুন চুক্তিতে স্বাক্ষর করিনি। এই বয়সে খুব বেশীদুর আর যাওয়া সম্ভব নয়। দীর্ঘমেয়াদে কিছুই এখন আর করা যাবেনা। এটাই স্বাভাবিক। আর আমি এই বিষয়গুলো মেনে নিয়েছি।’ সিরি-এ টেবিলের পঞ্চম স্থানে থাকা রোমার থেকে আট পয়েন্ট এগিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে জুভেন্টাস। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের জায়গা নিশ্চিত করতে আর মাত্র চার ম্যাচ বাকি রয়েছে। আগামী ১১ মে কোপা ইতালিয়ার ফাইনালে জুভেন্টাসের প্রতিপক্ষ ইন্টার মিলান।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন