দারুণ জয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব শুরু করলো ব্রাজিল

0
68
দারুণ জয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব শুরু করলো ব্রাজিল

আপডেট »১১≈ অক্টোবর ≈ ২০২০
গৃহকোণ স্পোর্টস ডেস্কঃ ইতিহাস-ঐতিহ্যের মতো শক্তিতেও দু’দলের মাঝে বিস্তর ফারাক। মাঠেও তা ফুটে উঠল। ব্রাজিলের আক্রমণাত্মক ফুটবলের যেন কোনো জবাব জানা ছিল না বলিভিয়ার। পুরোটা সময় আধিপত্য ধরে রেখে দারুণ জয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব শুরু করেছে তিতের দল। সাও পাওলোয় বাংলাদেশ সময় শনিবার সকালে কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম রাউন্ডে ৫-০ গোলে জেতে পাঁচবারের বিশ্বকাপ জয়ীরা। জোড়া গোল করেন রবের্তো ফিরমিনো। একবার করে জালে বল পাঠান ফিলিপে কৌতিনিয়ো ও মার্কিনিয়োস, অন্যটি আত্মঘাতী। ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত টানা আক্রমণ করে গেছে ব্রাজিল। আর ঘর সামলানোয় ব্যস্ত সময় পার কাটে বলিভিয়ার। প্রথমার্ধে ৮১ শতাংশ বল দখলে রেখে গোলের জন্য ১১টি শট নেয় বর্তমান কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা, এর ছয়টি ছিল লক্ষ্যে। দ্বিতীয়ার্ধে তাদের আরও ৯ শটের লক্ষ্যে ছিল তিনটি। বিপরীতে বলিভিয়ার তিন শটের একটি ছিল লক্ষ্যে। চোট শঙ্কায় নেইমারের খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা জেগেছিল। শেষ পর্যন্ত মাঠে নামলেন তিনি, আক্রমণে নেতৃত্বও দিলেন। গোল পাননি ঠিকই, তবে প্রতিপক্ষ রক্ষণে ভীতি ছড়ানোর কাজটা করেছেন দারুণভাগে। দুটি গোলে রেখেছেন অবদান। দলটির বিপক্ষে এই নিয়ে ৩১ বারের মুখোমুখি লড়াইয়ে ব্রাজিলের জয় হলো ২১টি। পাঁচবার জিতেছে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের ৭৫তম দলটি। ম্যাচের প্রথম মিনিটেই হতে পারতো গোল। কিন্তু বাঁ দিক থেকে নেইমারের দারুণ ক্রস ছোট ডি-বক্সের ডান দিকে পেয়ে লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন এভেরতন। তিন মিনিট পর কাছ থেকে মার্কিনিয়োসের লক্ষ্যভ্রষ্ট হেডে হতাশা বাড়ে ব্রাজিলের। একচেটিয়া চাপ ধরে রেখে ষোড়শ মিনিটে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ডান দিক থেকে দানিলোর ক্রসে ছয় গজ বক্সের মুখে লাফিয়ে নেওয়া হেডে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন পিএসজি ডিফেন্ডার মার্কিনিয়োস। আট মিনিট পর ডি-বক্সে ঢুকেই কৌতিনিয়ো নেওয়া শট একজনের পায়ে লেগে দিক পাল্টে জালে জড়াতে যাচ্ছিল। ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান বলিভিয়া গোলরক্ষক। নিজেদের ঘর সামলাতে ব্যস্ত বলিভিয়া পুরোপুরি রক্ষণাত্মক হয়ে পড়ে। এর মাঝেই ৩০তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ব্রাজিল। নেইমারের সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়ার ফাঁকে বাঁ দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে বাইলাইন থেকে গোলমুখে ক্রস বাড়ান রেনান লোদি। ছুটে গিয়ে টোকায় বাকি কাজ সারেন ফিরমিনো। দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ান ফিরমিনো। বাঁ দিক থেকে দুই ডিফেন্ডারের মধ্যে দিয়ে নেইমারের বাড়ানো বল নিচু শটে জালে পাঠান লিভারপুল ফরোয়ার্ড। বল গোলরক্ষকের দুই পায়ের মধ্যে দিয়ে গোললাইন পার হয়। দুই মিনিট পর গোলের লক্ষ্যে প্রথম শট নেয় বলিভিয়া। তবে সেটা ঠেকাতে খুব একটা সমস্যা হয়নি ব্রাজিল গোলরক্ষক ওয়েভেরতনের। এক হাত দিয়ে ক্রসবারের ওপর দিয়ে বল পাঠিয়ে দেন বাইরে। এর ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে পাল্টা আক্রমণে হ্যাটট্রিক পূরণের সুযোগ পেয়েও হারান ফিরমিনো। নেইমারের ডি-বক্সের মুখে বাড়ানো বল পর্যন্ত পৌঁছানোর যথেষ্ট গতিই ছিল না তার। ৬৬তম মিনিটে বলিভিয়ার ভুলেই ব্যবধান আরও বাড়ে। ক্ষিপ্র গতিতে আক্রমণে উঠে ডান দিক দিয়ে কৌতিনিয়োর ক্রস ডিফেন্ডার হোসে কারাসকোর কাঁধে লেগে জালে জড়ায় সাত মিনিট পর স্কোরলাইন ৫-০ করেন কৌতিনিয়ো। বাঁ দিক দিয়ে নেইমারের ক্রসে হেডে ঠিকানা খুঁজে নেন বার্সেলোনা মিডফিল্ডার। এর আগের ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষেও জালের দেখা পেয়েছিলেন তিনি। গত বছরের জুন-জুলাইয়ে ঘরের মাঠে কোপা আমেরিকা জয়ের পর আচমকা পথ হারিয়ে ফেলেছিল ব্রাজিল। টানা পাঁচ ম্যাচে জয়শূন্য পথচলার পর গত নভেম্বরে দক্ষিণ কোরিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে কক্ষপথে ফেরার আভাস দিয়েছিল তারা। এরপর আন্তর্জাতিক ফুটবল সূচির স্বাভাবিক বিরতি এবং করোনাভাইরাসের ধাক্কায় প্রায় ১১ মাস পর প্রথম খেলতে নামায় তাদের পারফরম্যান্স ঘিরে ছিল অনিশ্চয়তা। নেইমারদের আক্রমণাত্মক ফুটবলে সে শঙ্কা অনেকটাই কেটে গেছে; তবে শিষ্যদের সুযোগ হারানোর মিছিল ভাবনার কারণ হতে পারে কোচ তিতের। বড় দলের বিপক্ষে যা বিপদ ডেকে আনতে পারে। বাংলাদেশ সময় আগামী বুধবার সকালে দ্বিতীয় রাউন্ডে স্বাগতিক পেরুর বিপক্ষে খেলবে তিতের দল। আর আগামী মঙ্গলবার নিজেদের মাঠে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে খেলবে বলিভিয়া।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন