আগস্টে ২৪৯ নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার

0
68
আগস্টে ২৪৯ নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার

আপডেট »০৩ ≈ সেপ্টেম্বর ≈ ২০২০

গৃহকোণ প্রতিবেদক: দেশে আগস্ট মাসে ১০৪ জন ধর্ষণের শিকারসহ মোট ২৪৯ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এদের মধ্যে ৯৬ জন কন্যা শিশু, যাদের বয়স ১৮ বছরের নিচে। গতকাল বুধবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। পরিষদের লিগ্যাল এইড উপ-পরিষদে সংরক্ষিত ১৩টি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে তারা। প্রতিবেদনে বলা হয়, আগস্ট মাসে মোট ২৪৯ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জন শিশুসহ ৩২ জন গণ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৪৯ জন কন্যাশিশুসহ মোট ৭২ জন। এ ছাড়া তিনজন শিশুসহ ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ৫০ জনকে। আর শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে এক জন। যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে ছয় জন, এদের মধ্যে শিশু চার জন। এসিডদগ্ধের শিকার চার জন, অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়েছে এক জন। অপহরণের ঘটনা ঘটেছে মোট ছয় জন শিশুর সঙ্গে। আগস্ট মাসে নারী পাচার করা হয়েছে এক জন। বিভিন্ন কারণে ৩১ জন নারীকে হত্যা করা হয়েছে। এ ছাড়া একজন নারীকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। যৌতুকের কারণে নির্যাতন করা হয়েছে ছয় জনকে, এদের মধ্যে যৌতুকের কারণে হত্যা করা হয়েছে দুই জনকে। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তিন জন। বিভিন্ন নির্যাতনের কারণে আট জন শিশুসহ আত্মহত্যা করেছে ১৯ জন এবং ১০ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাল্যবিয়ে সংক্রান্ত ঘটনা ঘটেছে চারটি। আর সাইবার ক্রাইম অপরাধের শিকার হয়েছে দুই জন শিশু। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ জানায়, নারী ও শিশু নির্যাতন উদ্বেগজনকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর আগে দেশে গত জুলাই মাসে ১০৭ জন নারী ও কন্যাশিশু ধর্ষণের ঘটনাসহ মোট ২৩৫ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছিল।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন