সহমর্মী_হও

0
166
সহমর্মী_হও

–কুলসুম আক্তার সুমী

মৃত্যুর মতো বিভিষিকাময়
আঁধার গুহা থেকেও ভেসে আসে
সুমধুর ধ্বনী, জীবনের;
ঝরে পড়ে নীল জোছনার প্রেম, পূর্ণিমায়।
প্রকৃতির এই নিঃশব্দ ভারসাম্য খেলা,
বিমর্ষ-ক্লান্ত-কাতর মুখের ওপাশে
তৃপ্ত-উদ্দীপ্ত-স্বপ্নাতুর মুখ।
জীবন থামে না, স্বপ্ন থামে না।

যে সন্তান একই কাফনে মোড়ায়
বাবা-মায়ের লাশ, কিংবা
যে মা হারায় বুকের মানিক—
বেঁচে থাকে ওরা ও,
বেঁচে থাকতে হয়।
এতো যে মৃত্যুর হাতছানি,
এতো যে নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট;
তবু কেন লোভ-ক্ষোভ-হিংসা-দ্বেষ?

তুমি তো জানো না মানুষ
মৃত্যু ঠিক কতোটা কাছে তোমার?
দেয়ালের ওপাশটাতেই
জমদূত ওৎ পেতে আছে কিনা
কে বলতে পারে?
এবার সতর্ক হও,
একটু সদয় হও নিজের প্রতি,
পরিবার-পরিজন, কাছের মানুষদের প্রতি….

যদি সুযোগ থাকে হাতটা ধরো,
যদি সম্ভব হয় খোলা আকাশের নিচে যাও,
দূর মনে হলে, অন্তত ছাদে যাও,
কিংবা বারান্দায়—
তাও যদি না পারো
সরিয়ে দাও জানালার পর্দাটা।
এই দমবন্ধ মৃত্যুপুরীতে
আরেকটা পূর্ণিমা নাও আসতে পারে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন