ভৈরবে অটোরিকশা চালকের লাশ উদ্ধার

0
104
ভৈরবে অটোরিকশা চালকের লাশ উদ্ধার

আপডেট » ২৪ ≈ সেপ্টেম্বর ≈ ২০২০

সোহানুর রহমান: ভৈরবে হাত বাঁধা অবস্থায় সোহেল নামে এক অটোরিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার করে ভৈরব থানা পুলিশ। গতকাল বুধবার কালিকা প্রসাদ ইউনিয়নে ভৈরব-ময়মনসিংহ আঞ্চলিক সড়কের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত সোহেল উরফে বদন খন্দকার কুলিয়ারচর উপজেলার সালুয়া ইউনিয়নের মাঝের চর গ্রামের হান্নান মিয়ার ছেলে।
পুলিশ সূত্রে জানায়, এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে সকালে কালিকা প্রসাদ এলাকায় সড়কের পাশ থেকে একটি যুবকের মরদেহ উদ্ধার করি।
পুলিশ আরো জানায় তার শরীরে তেমন কোন আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে অটো রিক্সাটি ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে এই হত্যা করতে পারে।
নিহতের চাচাত ভাই জানায়, সোহেল কুলিয়ারচর দারিয়াকান্দি থেকে বেলাবো সড়কে অটো রিক্সা চালাতো। তার কোন শত্রু নাই, সে নিরীহ প্রকৃতির মানুষ ছিল।
নিহতের সহ চালক ওয়াসিম জানায়,আমি গতকাল(মঙ্গলবার) রাত সাড়ে ৮টার সময় দেখেছি দারিয়াকান্দি বাসস্ট্যান্ড থেকে একটি ভাড়া নিয়ে ফরিদপুর মাজারে যায়। তখন তার অটো রিক্সাতে পাঁচজন যাত্রী ছিল। এর পরে তাকে আর দেখা যায়নি । আজ খবর পেয়ে এখানে দেখি তার মরদেহ পড়ে আছে। এ বিষয়ে ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহিন বলেন, সকালে খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করি। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি পূর্ব শত্রুতার কারণে কিংবা অটো রিক্সাটি ছিনতাই করার উদ্দেশ্যে হয়তো কেউ তাকে হত্যা করছে। তার দেহে তেমন কোনো উলে­খযোগ্য আঘাতের চিহ্ন নেই। তবে তার ঘাড় মটকানো রয়েছে এবং পিছনে হাত বাঁধা। আর নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন