ভৈরবে ১০ টি ফার্মেসীর মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, আটক ২

0
160
ভৈরবে ১০ টি ফার্মেসীর মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, আটক ২

সোহানুর রহমান \ ভৈরবে নকল ভেজাল বিদেশী ওষুধ বিক্রি ও ফার্মাসিষ্ট লাইসেন্স না থাকায় ১০ টি ফার্মেসীর মালিককে জরিমানা করেছে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের ভ্র্যাম্যমান আদালত। এ ছাড়া ২ জনকে আটক করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর থেকে একটানা বিকাল পর্যন্ত কমলপুর বাসষ্ট্যান্ড দূর্জয় মোড় ও ভৈরব বাজারের বিভিন্ন ঔষধের দোকানে ভ্র্যাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় অভিযান পরিচালনা করেন ভৈরব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট লুবনা ফারজানা, সহকারি কমিশনার (ভ‚মি) ও নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রি খিসা, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসাইন ও মোহাম্মদ নুরুল আলম। অভিযানে নকল, ভেজাল বিদেশী ওষুধ বিক্রি ও লাইসেন্স নবায়ন না করায় এবং ফার্মাসিষ্ট লাইসেন্স না থাকায় বাপ্পী, সুজন, জনপ্রিয়, রেহেনা, মা-মণি, এসডি, সাজেদা আলাল, সজিব, রুমা মেডিক্যাল ফার্মেসীসহ ১০টি ফার্মেসীর মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া ইন্ডিয়ান হারবালের বৈধ কাগজপত্র ও অনুমোদন না থাকায় ফজলুর রহমান ও মাহবুবুর রহমান নামে ২ জনকে আটক করেছে ভ্র্যাম্যমান আদালত।
ভ্র্যম্যমান আদালতের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট লুবনা ফারজানা জানান,ঔষধ মানুষের জীবন রক্ষা করে আবার কিছু ভেজাল ওষুধ মানুষের জীবন ধব্বংস করে। তাই নকল, ভেজাল বিদেশী ওষুধ বিক্রি ও লাইসেন্স নবায়ন না করায় এবং ফার্মাসিষ্ট লাইসেন্স না থাকায় ১০টি ফার্মেসীর মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তবে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে ও তিনি জানান। এ বিষয়ে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসাইন ও মোহাম্মদ নুরুল আলম জানান, সারা বাংলাদেশে নকল, মেয়াদোর্ত্তীণও ভেজাল বিরোধী ওষুধ অপসারনে অভিযানের অংশ হিসেবে এ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন