নারায়ণগঞ্জে সাংবাদিককে ছুরিকাঘাতে হত্যা, গ্রেপ্তার ৩

0
50
নারায়ণগঞ্জে সাংবাদিককে ছুরিকাঘাতে হত্যা, গ্রেপ্তার ৩

আপডেট »১৩≈ অক্টোবর ≈ ২০২০

নারায়াণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জে সাংবাদিক ইলিয়াছকে (৪৮) ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় আটজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এরইমধ্যে মামলার প্রধান আসামি তুষারসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে নিহত সাংবাদিক ইলিয়াছের স্ত্রী জুলেখা বেগম বাদী হয়ে বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিহত ইলিয়াছ বন্দর উপজেলার সাবদী জিওধরা এলাকার মৃত মজিবর রহমানের ছেলে। তিনি স্থানীয় দৈনিক বিজয় পত্রিকার বন্দর প্রতিনিধি ছিলেন। গ্রেফতাররা হলেন- বন্দর উপজেলার কলাগায়িয়া ইউনিয়নের আদমপুর এলাকার মৃত জামান মিয়ার ছেলে তুষার (২৮) একই এলাকা মিসির আলী (৫৩) ও মিন্নত আলী মিনা (৬০)। মামলার অন্য আসামিরা হলেন- মৃত জামান মিয়ার ছেলে তুর্জ (২৫), নুরুল মিয়ার ছেলে মাসুদ (৩৫), আবদুল বাতেনের ছেলে সাগর (২৬), মৃত ফালান মিয়ার ছেলে পাভেল (২৫) ও হজরত আলী (৫০)। মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মৃত জামান মিয়ার দুই ছেলে তুষার ও তুর্জয়ের অবৈধ গ্যাস সংযোগ ও মাদক ব্যবসা নিয়ে ইলিয়াস পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করে। স্থানীয়ভাবে তাদের মধ্যে পূর্ববিরোধও ছিল। প্রকাশিত সংবাদের জের ধরে ইলিয়াসকে হুমকি দিয়ে আসছিলেন তুষার। এরই জের ধরে গত রোববার রাত ৮টার দিকে ব্যক্তিগত কাজ শেষে বাসায় যাওয়ার পথে উপজেলার আদমপুর এলাকায় পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা ইলিয়াছকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জিএম মোস্তাফা মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল বের করে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানায়। এ সময় তারা তুষারকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বন্দর থানার মদনগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আজগর হোসেন জানান, সাংবাদিক ইলিয়াছ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার স্ত্রী জুলেখা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার প্রধান আসামি তুষারসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদেরকে সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন