ইতিহাসে প্রতিদিন আজ ১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২১

0
29
ইতিহাসে প্রতিদিন আজ ১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২১

ফার্সি ১৩৫৬ সালের ২৯শে বাহমান অর্থাৎ ১৯৭৮ খিষ্ট্রাব্দের এ দিনে ইরানের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর তাব্রিজে এক গণ-বিদ্রোহ হয়েছিলো। একই বছর ফার্সি দেই মাসে অর্থাৎ ডিসেম্বরের শেষের দিকে ইরানের পবিত্র নগরী কোমের শহীদদের জন্য দোয়া করার উদ্দেশ্যে তাব্রিজের একটি বড় মসজিদে জনগণ সমবেত হয়েছিলেন। তাব্রিজের আলেমরা এই দোয়ার আয়োজন করেছিলেন। কিন্তু তাগুতী বা ইসলাম বিরোধী শাসকের নিরাপত্তা বাহিনীর বৈরী আচরণের ফলে এই গণ-বিদ্রোহ দেখা দেয়। তৎকালীন শাসক এই গণ-বিদ্রোহে এতোটাই কিংকর্তব্য বিমুঢ় হয়ে পড়েছিলো সে তারা সত্যিকার ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য মিথ্যার আশ্রয় গ্রহণ করে। তারা দাবি করে, এই বিদ্রোহের সাথে যারা জড়িত ছিলো তারা ইরানের সীমান্তের অপর পার থেকে এসেছে। প্রকৃতপক্ষে তাব্রিজের এই গণ-বিদ্রোহ ছিলো সা¤্রাজ্যবাদীর মদদপুষ্ট এবং অত্যাচারী শাসকের বিরুদ্ধে ইরানি জাতির দীর্ঘ দিনের লড়াইয়ের ফসল। পরবর্তীকালে যা ইরানের জনগণের ইসলামী আন্দোলনে রূপ লাভ করে।

১৯৫২ সালের এ দিনে বৃটেনের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী উইস্টন চার্চিল ঘোষণা করেন, বৃটেন পরমাণু বোমা তৈরি করেছে। অস্ট্রেলিয়ার উপকুলের উত্তর পশ্চিম দিকে অবস্থিত মন্টে বেলো দ্বীপপুঞ্জে এ বোমার পরীক্ষা করা হবে বলে পরিকল্পনা করা হয়। তবে দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের পর বৃটেনের পরমাণু বোমা বানানোর পরিকল্পনা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী ক্লিমেন্ট এটলির সরকার। বৃটেন বিশ্বের তৃতীয় পরমাণু শক্তিধর দেশে পরিণত হয়। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র এবং রাশিয়া পরমাণু বোমা তৈরি করেছিলো।

১৮২৭ সালের এ দিনে সুইজারল্যান্ডের জ্ঞান তাপস, শিক্ষাবিদ, শিক্ষা সংস্কারক জন হেনির পেস্টাল্ব্জ€Œজি পরলোকগমন করেন। ১৭৪৬ সালের ১২ ফেব্রæয়ারি তিনি জুরিখে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। শিশুকালে তিনি পিতাকে হারান এবং পরবর্তীতে তার মা তাকে বড় করেন। জুরিখ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময়েই তিনি সংস্কারের দিকে ঝোকেন। ১৭৬৯ সালে তিনি বিয়ে করেন এবং ১৯৮১ সালে তার বিখ্যাত গ্রন্থ লিওনার্ড এন্ড গার্ডরুড প্রকাশিত হয়। জার্মানিতে তার এই বই ব্যাপক ভাবে সমাদৃত হয়েছিলো।

১৯৬৮ সালের এ দিনে তৎকালীন সায়গন বর্তমান হো চি মিন সিটি থেকে মার্কিন কর্মকর্তারা জানান, এক সপ্তাহে তাদের সবচেয়ে বেশি সৈন্য নিহত হয়েছে। এক সপ্তার যুদ্ধে ৫৪৩ জন মার্কিন সৈন্য নিহত এবং ২৫৪৭ জন আহত হয়েছে। মার্কিনীরা টেট অফেনসিভ নামে যে সেনা অভিযান চালিয়েছিলো তার ফলে এক সপ্তায় এতো ব্যাপক সংখ্যক মার্কিন সৈন্য নিহত হয়। ভিয়েতনাম যুদ্ধকে কখনো কখনো দ্বিতীয় ইন্দোচীন যুদ্ধ বলে অভিহিত করা হয়। তবে ভিয়েতনামবাসীর এ যুদ্ধকে আমেরিকার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ যুদ্ধ হিসেবে অভিহিত করে। এই যুদ্ধে দক্ষিণ ভিয়েতনাম এবং যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর সাথে উত্তর ভিয়েতনামের লড়াই হয়েছে। ১৯৫০ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্র ভিয়েতনামে সেনা পাঠাতে শুরু করলেও ১৯৬০ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্র সেখানে পুরোদস্তুর যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে। উত্তর ভিয়েতনামের উপর টনকে টন বোমা বর্ষণ করেও যুক্তরাষ্ট্র শেষ রক্ষা করতে পারে নি। শেষ পর্যন্ত ভিয়েতনামের মানুষের বিজয় ঘটেছে এবং যুক্তরাষ্ট্রকে ১৯৭৫ সালে ভিয়েতনাম ছেড়ে পালাতে হয়েছিলো। যুদ্ধে পনর থেকে ২০ লক্ষ ভিয়েতনামবাসী এবং ৫৮ হাজারের বেশি মার্কিন সৈন্য নিহত হয়েছিলো।

১৮৫৬ সালের এ দিনে ছবি মুদ্রনের হাফটোন প্রক্রিয়ার আবিষ্কারক ফেডারিক ইউজেন আইভস জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৩৭ সালের ২৭শে মে তিনি পরলোকগমন করেছিলেন। তিনি পেশায় আলোকচিত্রী ছিলেন। ছবি মুদ্রণের হাফটোন প্রক্রিয়া আবিষ্কার হওয়ার আগে ছবি মুদ্রণ করা হতো হাতে বানানো বøকের সাহায্যে। তাতে শাদা-কালো ছবি মুদ্রণ করা সম্ভব হলেও ছবির ধূসর বা ছায়া ছায়া এলাকাগুলো ফুটে উঠতো না। হাফটোন প্রক্রিয়ায় ছাপানো ছবিতে এ সমস্যা দূর করা সম্ভব হয়।

১৯১৫ সালের এ দিনের সন্ধ্যায় প্রচন্ড তুষার ঝড়ের কারণে ডেনমার্কের উপকুলস্থ নর্থসীতে জার্মানির জেপেলিন এল ফোর পতিত হয়। মোটর চালিত এই উড়োযান ১৯০০ সালে তৈরি করেছিলেন জার্মানীর আবিষ্কারক ফার্দিন্যান্ড গ্রাফ ভন জেপেলিন। তবে এর কয়েক দশক আগে অন্য এক ফরাসী আবিষ্কারক এ জাতীয় একটি উড়োযান আবিষ্কার করেছিলেন। কিন্তু জেপেলিন আকারে সেই ফরাসি জেপলিনের চেয়ে অনেক বড় ছিলো। দুঘর্টনার মাত্র এক মাস আগে এল ফোর জেপেলিন দিয়ে বৃটেনের উপর বোমা বর্ষণ করা হয়েছিলো।

বিজ্ঞানী জোদার্নো ব্রæনোকে পোপের নির্দেশে পুড়িয়ে হত্যা (১৬০০)
টাইপরাইটারের উদ্ভাবক ক্রিস্টোফার ল্যাথাম শোলসের মৃত্যু (১৮৯০)
বেলজিয়ামের রাজা প্রথম আলবার্ট পর্বত আরোহণের সময় পড়ে নিহত (১৯৩৪)
ব্রিটিশ জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সংক্রান্ত শে^তপত্র প্রকাশ (১৯৪৪)
ইয়েমেনের বাদশা ইমাম ওয়াহিদকে হত্যা (১৯৪৮)
পূর্ব জার্মানি বার্লিন প্রাচীরের ৬শ ফুট ভেঙে ফেলার ঘোষণা দেয় (১৯৯০)
ইন্দোনেশিয়ায় ভ‚মিকম্পে ৫৩ জন নিহত (১৯৯৬)

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন